আইসক্রিম রেসিপি-বাড়িতে হবে আইসক্রিম!

আইসক্রিম রেসিপি -ইদানিং বাইরে যে পরিমানে গরম পড়েছে তাতে ঠান্ডা কিছু না খেলে টেকা দায় হয়ে গিয়েছে । আর এই গরমে আপনাকে স্বতস্ফুর্ত আরাম এনে দিতে পারে আইসক্রিম …

অনেকে ভেবে থাকেন এটি বাচ্চাদের খাবার ! তবে যে গরম পড়েছে তাতে বাচ্চা বুড়ো কিছুই আর ম্যাটার করছে না !
সেকারণে আমাদের আজকের আর্টিকেলটি সাজানো হয়েছে আইসক্রিম রেসেপি নিয়ে !  তো চলুন জেনে নেওয়া যাক !
বেসিকালি আজকে আমরা জেনে নেবো কিভাবে আপনি স্টবেরি আইসক্রিম তৈরী করতে পারেন ।
এর অন্য যে যে উপকরণের প্রয়োজন পড়বে

আইসক্রিম রেসিপি র জন্য উপকরণ

  • স্টবেরি 
  • হেভি ক্রিম
  • কাপ
  • কন্ডেন্সড মিল্ক
  • চিনি
  • স্বাস্থ্যসম্মত খাবার রঙ
  • ভ্যানিলা এসেন্স !

ভালো রান্নার জন্য ভালো উপকণের প্রয়োজন। কিন্তু পাবেন কোথায়? যারা বলছে আমাদের পণ্য অর্গানিক, খাঁটি, বিষমুক্ত ও নিরাপদ, তাদের কথা কতটুকু
বিশ্বাস করা যায়? অথচ আপনার-আমার নিরাপদ খাদ্য চাই। দেখুন নিরাপদ খাদ্য তালিকা ও মূল্য

আইসক্রিম রেসিপি – যেভাবে প্রস্তুত করবেন

স্ট্রবেরি আইসক্রিম

প্রথমে আস্ত স্ট্রবেরি কিছুটা চিনি  ব্লেন্ডারে করে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। আপনার কাছে যদি ইলেক্রিক বিটার থাকে তাহলে আইসক্রিম তৈরী করতে সবচেয়ে বেশী সুবিধা হবে। একটি ইলেক্রিক বিটার দিয়ে কিছুটা হেভী ক্রিম টানা ৭ মিনিটের জন্য বিট করুন। বিটার না থাকলে টানা ১ ঘন্টা হাত দিয়ে বিট করে নিন হেভি ক্রিম। তবে আমার একটা পরামর্শ থাকবে আপনাদের জন্য ! চেষ্টা করবেন হাত দিয়ে বিট করার।এতে করে ক্রিমের টেক্সটার্ডটা নষ্ট হবেনা । তবে আপনি যদি একই কাজ কেবল কিছুটা সময়য় আর শ্রম বাচানোর জন্য ইলেক্রিক বিটার দিয়ে করে থাকেন তাহলে একটা আলাদা রকমের হিট জেনারেট হবে।ফলে ভেতরের মূল টেক্সটার্ডটা এখানে আপনি পাবেন না ! 

কিছু সময়য় বিট করার পরেই তা ফোমের মতো হয়ে আসবে।এর পর ভ্যানিলা এসেন্স,স্টবেরি ব্লেন্ড আর কন্ডেন্সড মিল্ক একসাথে মিশিয়ে নিয়ে আরেকবার বিট করে নিন।সব কিছু মেশানো হয়ে গেলে পরবর্তী প্রসেসটা খুবই সোজা। একটি এয়ার টাইড বক্স জোগাড় করতে হবে,যেখানে আপনি আইসক্রিমটা রাখতে পারবেন ।চাইলে কাঁপে অথবা ফোর্মায় করেও এটা ফ্রিজিং এর জন্য প্রস্তুত করতে পারেন ! যাই হোক !

সব কিছু মিশিয়ে নির্দিষ্ট পাত্রে নিয়ে ফ্রিজে ফ্রিম করতে দিন ৫-৬ ঘন্টার জন্য ! কিছুক্ষণ রাখার পরেও তৈরী হয়ে যাবে আপনার পছন্দের স্টবেরি আইসক্রিম ! এবং একইভাবে চাইলে আপনি অরেঞ্জ ফ্লেভারের আইসক্রিম তৈরী করতে পারেন!

চকলেট আইসক্রিম প্রস্তুত প্রণালী

উপকরণ সমূহ :

  • ডাবল বয়লারে গলানো চকলেট ১/৩ কাপ,
  • কোকো পাউডার ১ কাপ,
  • গুঁড়া দুধ ২ কাপ,
  • পানি আড়াই কাপ,
  • কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,
  • চিনি পৌনে ১ কাপ,
  • ক্রিম ১ টিন,
  • জেলেটিন গলানো ১ টেবিল চামচ,
  • সিএমসিপাউডার গোলানো ১ টেবিল চামচ,
  • তরল গ্লুকোজ ১ চা-চামচ,
  • ডিমের সাদা অংশ ২টি,
  • চিনি ২ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :

প্রথমে গুঁড়া দুধ, পানি, কর্নফ্লাওয়ার ও চিনি ব্লেন্ড করে নিন। এবার মিশ্রণটি চুলায় দিয়ে ঘন করে নিন। গরম থাকতেই এতে তরল গ্লুকোজ মিশিয়ে নিন। ঠান্ডা হলে এতে জেলেটিন ও সিএমসি মিশান। ক্রিম ও গলানো চকলেট ও কোকো পাউডারের মিশ্রণ দিয়ে বিট করে ফ্রিজে ৩-৪ ঘণ্টা জমতে দিন। বের করে বিট করে আবার জমতে দিন। এভাবে ২ ঘণ্টা পরপর কয়েকবার করুন। শেষের বার ডিমের সাদা অংশ ও চিনির মেরাং দিয়ে বিট করে ভালোভাবে জমতে দিন।

ভ্যানিলা আইসক্রিম

উপকরণ সমূহ :

  • হেভি ক্রিম ২০০ মিলি,
  • কনডেন্সড মিল্ক আধা কাপ (মিষ্টি কম বেশির উপর পরিমাণ কমাবেন বা বাড়াতে পারেন),
  • ভ্যানিলা এসেন্স আধা চা-চামচ।

প্রণালি :> ফ্রিজ থেকে সদ্য বের করা হেভি ক্রিম বিটার দিয়ে বিট করুন। ‘সফট পিক’ বা চূড়ার মতো হলে কনডেন্স মিল্ক, ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে ভালো মতো মিশিয়ে পরিষ্কার প্লাস্টিক কন্টেইনার বা বাক্সে ডিপ ফ্রিজে ছয় থেকে আট ঘণ্টার জন্য রেখে দিতে হবে। এরপর পরিবেশন করুন।

ফ্রুট আইসক্রিম

উপকরণ :১ কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ,২. ভ্যানিলা এসেন্স হাফ চা-চামচ,৩. পানি ঝরানো টকদই ১ কাপ, ৪. ফলের কুচি ১ কাপ,৫. আমন্ড-পেস্তা-কাজু কুচি আধ কাপ,৬. ক্রিম ১৭০ গ্রাম ,৭. গুড়া দুধ আধ কাপ।

ফ্রুট আসসক্রিম প্রস্তুত প্রণালি:

আধ কাপ ফলের কুচি ও সিকি কাপ বাদাম কুচি বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন ।কয়েক রকম ফুড কালার মিশিয়ে আলাদা আলাদা বক্সে রেখে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা রাখুন। ফ্রিজ থেকে আইসক্রিম বের করে বাকি ফলের কুচি ও বাদাম কুচি মিশিয়ে চার ঘণ্টা জমিয়ে পছন্দমতো ফলের কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন ।

চকবার প্রস্তুত প্রণালী

উপকরণ সমূহ :

  • হুইপ ক্রিম ১ কাপ,
  • ভ্যানিলা এসেন্স ২ চা-চামচ,
  • চকলেট আধা কাপ,
  • তরল দুধ ৩-৪ কাপ,
  • গুঁড়া দুধ ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি : হুইপ ক্রিম বিটার দিয়ে বিট করে নিয়ে চিনি দিয়ে আবার বিট করুন। তারপর এতে ভ্যানিলা এসেন্স ও গুঁড়া দুধ ও তরল দুধ দিয়ে বিট করতে হবে। তারপর ফ্রিজে ৩-৪ ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। চকলেট চুলায় দিয়ে ডাবল বয়লারে গলিয়ে নিন। আইসক্রিমের ছাঁচে গলানো চকলেট লাগিয়ে নিয়ে একটু জমিয়ে নিয়ে এতে হুইপ ক্রিমের মিশ্রণটা দিয়ে কাঠি দিয়ে ফ্রিজে জমতে দিতে হবে ৩-৪ ঘণ্টা। পরিবেশনের আগে আইসক্রিমের ছাঁচটা সাধারণ তাপমাত্রার পানিতে ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখলে সহজে ছাঁচ থেকে আইসক্রিম বের হয়ে আসবে।

মিক্স ফ্রুট ইয়োগার্ট আইসক্রিম তৈরি

  • পানি ঝরানো টকদই ৫০০ গ্রাম,
  • মিক্স ফ্রুট ২ কাপ,
  • ক্রিম ১ কাপ,
  • ভ্যানিলা এসেন্স ২ চা-চামচ,
  • গলানো সাদা চকলেট ১/৩ কাপ,
  • আইসিং সুগার সিকি কাপ,
  • ঘন তরল দুধ ১ কাপ,
  • গুঁড়া দুধ ১/৩ ভাগ।

প্রস্তুত প্রণালি : ক্রিমটা ভালোভাবে বিট করে নিতে হবে। সাদা চকলেট ডাবল ব্রয়লারে দিয়ে গলিয়ে নিয়ে এতে ক্রিম, টকদই, চিনি, ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে ভালোভাবে বিট করুন। গুঁড়া দুধ দিতে হবে। মিক্সড ফ্রুট (চিনির শিরায় রাখা) দিয়ে ফ্রিজে জমতে দিন। ৩-৪ ঘণ্টা পর বের করে কাঁটা চামচ দিয়ে নেড়ে আবার ফ্রিজে জমতে দিন। তারপর সারা রাত ফ্রিজে রেখে জমিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার মিক্সড ফ্রুট ইয়োগার্ট আইসক্রিম।

চকলেট-আমন্ড আইসক্রিম তৈরি

উপকরণ সমূহ:

  • গুঁড়া দুধ ২ কাপ,
  • কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,
  • পানি আড়াই কাপ,
  • চকলেটবার ১টি,
  • কোকো পাউডার ২ টেবিল চামচ,
  • চকলেট ফ্লেভার আধা চা-চামচ,
  • চিনি পৌনে ১ কাপ,
  • ক্রিম ১৭০ গ্রাম,
  • আমন্ড পেস্ট আধা কাপ,
  • আমন্ড কুচি আধা কাপ,
  • জেলাটিন পাউডার ১ টেবিল চামচ,
  • গ্লুকোজ গাম সিকি চা-চামচ,
  • তিনটি ডিমের সাদা অংশ।

প্রণালি :> গুঁড়া দুধ, কর্নফ্লাওয়ার, পানি, চিনি, কোকো পাউডার ও চকলেট একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে চুলায় জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিতে হবে। আধা কাপ পানির সঙ্গে জেলাটিন পাউডার গুলিয়ে দুধের মিশ্রণের সঙ্গে মিলিয়ে নিতে হবে। এতে আমন্ড পেস্ট, গ্লুকোজ গাম, ক্রিম ও এসেন্স দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে বাক্সে করে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা জমাতে হবে। ফ্রিজ থেকে আইসক্রিম বের করে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে আবার ফ্রিজে রাখতে হবে। এভাবে দুবার করতে হবে। ডিমের সাদা অংশ ফোম করে আইসক্রিমের সঙ্গে মিলিয়ে আমন্ড কুচি ছড়িয়ে পাঁচ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে পরিবেশন করতে হবে।

ফ্রুট ইয়োগার্ট আইসক্রিম

উপকরণ :১. পানি ঝরানো টকদই ১ কাপ,২. কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ,৩. ভ্যানিলা এসেন্স সিকি চা-চামচ, ৪. ফলের কুচি ১ কাপ,৫. আমন্ড-পেস্তা-কাজু কুচি আধা কাপ,৬. ক্রিম ১৭০ গ্রাম,৭. গুঁড়া দুধ আধা কাপ।

প্রস্তুত প্রণালি :

  • আধা কাপ ফলের কুচি ও সিকি কাপ বাদাম কুচি বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। কয়েক রকম ফুড কালার মিশিয়ে আলাদা আলাদা বাক্সে রেখে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা জমাতে হবে।
  • ফ্রিজ থেকে আইসক্রিম বের করে বাকি ফলের কুচি ও বাদাম কুচি মিশিয়ে চার ঘণ্টা জমিয়ে পছন্দমতো ফলের কুচি দিয়ে পরিবেশন করতে হবে। এতে পাকা আম, কলা, আপেল, সেন, স্ট্রবেরি, চেরি, আঙুর ইত্যাদি ফল ব্যবহার করা যায়।

আশা করি ফুডলিংক বিডির এই আইসক্রিম রেসিপি টি ভালো লেগেছে। কোন প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে কমেন্ট বক্সে দয়া করে জানাবেন।
ও হাঁ, আপনিও কিন্তু এরকম সুন্দর সুন্দর ফুড রেসিপি লিখতে বা ইউটিউবে রান্নার ভিডিও বানাতে পারেন! তাহলে এখনি যোগাযোগ করুন।
আরও ভালো জানার জন্য ইউটিউব চ্যানেল থেকে ঘুরে আসতে পারেন। আশা করি আইসক্রিম বানানোর ভিডিওটি দেখে আরও সহজে
বাসায় রান্না করতে পারবেন হোটেলের চেয়েও সুন্দর করে। প্রবন্ধটি সংরক্ষণে রাখতে আপনার সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করে রাখুন।
যাতে প্রয়োজনে খুজে পেতে সহজ হয়। সাথে থাকার জন্য অন্তরের অন্তরস্থল থেকে এক রাশ প্রিতি ও ভালোবাসা রইল।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *