ডিমের রেসিপি

৬ ধরণের ডিমের রেসিপি- মজাদার রেসিপি হবে বাড়িতেই!

ডিম (বয়লার, হাঁস, দেশী মুরগী) সাধারণ দৃষ্টিকোণ থেকে অত্যন্ত জরুরী ও নিত্যদিনের সহজ একটি খাবার। ডিমের নাস্তা রেসিপি ও বেশ মজার।
তবে এই স্বাভাবিক খাবার কে কত রকম মডিফাই করে  রেসিপি তৈরি করা যেতে পারে সে সম্পর্কে হয়তো আমাদের জানা নেই।
আর তাই আজকের আর্টিকেলে আমরা মূলত কিছু ডিমের রেসিপি শেয়ার করতে চলেছে যেগুলো আপনার ডিমের প্রতি  একঘেয়েমি  কাটাতে  সাহায্য করবে।

চলুন জেনে নেওয়া যাক, ডিমের কিছু টেস্টি এবং অথেন্টিক ও সহজ রেসিপি…

ডিম বিরিয়ানি রেসিপি

প্রায় হরহামেশাই বেশ কয়েক রকমের বিরিয়ানি রেসিপি আমরা বাড়িতে চেষ্টা করেছি। বিশেষ করে যারা বিরিয়ানি লাভার রয়েছে তারা  এই ধরনের ভিন্নধর্মী বিরিয়ানি রেসিপি পছন্দ করে থাকেন। ডিম রেসিপি তেমনি একটি ভিন্নধর্মী রেসিপি । 

 কিভাবে ডিমের অথেন্টিক বিরানি রেসিপি তৈরি করবেন তার একটি সংক্ষিপ্ত প্রস্তুত প্রণালি নিচে শেয়ার করা হলোঃ

প্রথমে ভাল করে বিরিয়ানির চাউল গুলো ধুয়ে নিয়ে একটি পাত্রে রেখে দিতে হবে।

এরপর বিরিয়ানির জন্য আপনি সচরাচর যে ধরনের মসলাগুলো ব্যবহার করে থাকেন সেগুলো একটি পাত্রে কিছুটা তেল নিয়ে আচিয়ে নিন।

অপর একটি পাত্রে কিছুটা পানি নিয়ে চাউল আধা সেদ্ধ করে নিন। অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে  বিরিয়ানি যেন একদম সরাসরি  ভাতে পরিণত না হয়।

এরপর অপর একটি পাত্রে ভালো করে  ডিমগুলো ভেজে নিতে হবে। এর পূর্বে অবশ্যই ডিমগুলো সিদ্ধ করে নিতে হবে। ডিম  ভেজে নেওয়া হলে,আধা সেদ্ধ চাউল  কষানো মসলায় ঢেলে দিতে হবে।

 খানিকক্ষণ নাড়াচাড়া করার পর পানি দিয়ে দিতে হবে। এর পর ঢাকনা দিয়ে কিছু সময় ঢেকে রাখতে হবে ।  সবশেষে, ডিমগুলো চাউলের  উপরে ছেড়ে দিতে হবে। এরপর আবার কিছু সময়ের জন্য দমে রাখতে হবে।

বাসে ভাবে তৈরি হয়েছে অথেন্টিকেট ডিম বিরিয়ানি ।  আশাকরি আপনাদের  ডিম বিরিয়ানি রেসিপি  আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। 

ভাপা ডিমের রেসিপি

ভাপা ডিমের রেসিপি মূলত একটি ভিন্নধর্মী ডিম রেসিপি। এর সংক্ষিপ্ত প্রস্তুত প্রণালি নিচে বর্ণনা করা হলোঃ

এর জন্য মূলত কয়েকটি ডিম ভালো করে একটি পাত্রে ফেটে নিতে হবে এবং অতঃপর  স্টিলের টিফিন বাটিতে করে  সেদ্ধ করতে দিতে হবে।

 চাইলে এখানে একটি স্ট্যান্ড ব্যবহার করতে পারেন।

মূলত যারা গ্যাসের চুলা ব্যবহার করেন তারা চাইলে একটি স্ট্যান্ড ব্যবহার করতে পারেন। দূর থেকে হিট লাগলে  একটা স্মোকি ফ্লেভার আসবে, যেটা আবার খারাপ লাগে না!

  সেদ্ধ করা হয়ে গেলে, টিফিন বক্স থেকে বের করে  ডিমগুলোকে পিস পিস করে  কাটতে হবে।

এরপর আমরা সচরাচর যে ভাবে অডিনারি ডিমের কারি রান্না করি ঠিক সেভাবে এটিও রান্না করতে হবে।

আমি এই লিংকে ভাপা ডিম রেসিপি একটি  ভিডিও রেসিপি  দিয়ে দিচ্ছি। এখান থেকে আপনি চাইলে দেখে নিতে পারেন সম্পূর্ণ রেসিপিটি। সচরাচর এক  ব্লগ এর মধ্যে  পুরোটা বর্ণনা করা সম্ভব হয়ে ওঠেনা।

 এই লিংকে ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন  ভাপা ডিমের রেসিপি! 

যদিও এই রেসিপি ব্যক্তিগতভাবে আমার খুব একটা পছন্দ নয়।

তবুও আমার আশেপাশে এমন অনেক মানুষ রয়েছে যারা এই রেসিপিটা অনেক বেশি পছন্দ করে।

আশা করি আপনারা এই রেসিপিটা খুব পছন্দ হবে।

অনেকেই  ভাপা ডিমের বলতে  ডিম ভাজি ভুনাকে বুঝিয়ে থাকে। তবে অথেন্টিক  ভাপা ডিম রেসিপি রান্না করতে চাইলে  অবশ্যই ভিডিওটি সম্পূর্ণ দেখবেন।

ডিমের স্যান্ডউইচ রেসিপি

অল্প বয়সী  ছেলে-মেয়েরা ডিমের স্যান্ডউইচ রেসিপি সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে। বড়রা পছন্দ করেনা ব্যাপারটা তেমন না।বিশেষ করে ব্যক্তিগতভাবে আমি এটি অনেক বেশি পছন্দ করি।

আপনি চাইলে বিকেলের নাস্তা হিসেবে ডিমের স্যান্ডউইচ তৈরি করে নিতে পারেন।

ডিমের স্যান্ডউইচ রেসিপি  তৈরি করা খুবই সোজা ।  ঘরে থাকা কতগুলো উপাদান দিয়ে খুব সহজেই তৈরি করে নিতে পারেন ডিমের স্যান্ডউইচ।

ডিমের স্যান্ডউইচ তৈরি করার জন্য নিম্নোক্ত পদক্ষেপগুলো অনুসরণ করুনঃ

  • প্রথমে একটি কড়াইয়ে  সামান্য পরিমাণ তেল নিয়ে তার ভেতরে ডিম ও  লবণ দিয়ে তৈরি করুন ডিমের একটি ঝুরি।র একটি পাত্রে কিছুটা টমেটো কেচাপ, মেয়োনিজ, ধনেপাতা কুচি, লঙ্কা কুচি এবং নিচে রাখা ডিম ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে।। প্রয়োজন পড়বে কতগুলো ব্রেডের। সচরাচর দোকানে ফ্যামিলি প্যাকেজ এর সকল ব্রেড কিনতে পাওয়া যায় সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন। তবে খেয়াল রাখবেন আকৃতিতে জানো সেগুলো কিছুটা বড় হয়।
  • এবার ব্রেড এর একপাশে কিছুটা মাখন লাগিয়ে নিতে হবে।
  • এবার তার ওপরে সেই মিশ্রণটুকু রাখতে হবে। 
  • ভালো করে চারিদিকে ছড়িয়ে দিতে হবে। অতঃপর পারুটির আরেকটি অংশ  এর ওপর চাপ দিতে হবে। একইভাবে তার উপরও কিছুটা মাখন লাগিয়ে নিতে হবে এবং অতঃপর  তার ওপর আরেকটি  ব্রেড চাপা দিতে হবে।
  • এরপর তিনকোনা আকৃতি করে  কেটে নিতে হবে পাউরুটি।
  • এরপর চাইলে সেটি বিয়ে করতে পারেন অথবা  তেলে ভেজে নিতে পারেন, সেটা আপনার মর্জি।
  • অনেকে ব্রেডগুলো টোস্ট মেকারে নিয়ে একটু টোস্ট তৈরী করে নেয়।
  • তবে আমার মনে হয় উপরোক্ত  পদ্ধতিতে ডিমের স্যান্ডউইচ তৈরি করলে তা সবচেয়ে বেশি মজাদার হয়।

ডিমের চপ রেসিপি

ডিমের চপ

বিকেলের নাস্তায় ডিমের চপ অত্যন্ত মুখরোচক একটি খাবার। ঝটপট বাড়িতে  বসেই কতগুলো সহজলভ্য উপাদান দিয়ে তৈরি করে ফেলতে পারেন ডিমের চপ।

 সংক্ষিপ্ত  প্রস্তুত প্রণালি নিচে বর্ণনা করা হলোঃ

প্রথমে যে পরিমাণ ডিম চপ তৈরি করবেন সে পরিমাণ ডিম সেদ্ধ করে নিতে হবে। এবং অতঃপর সেগুলো মাঝ বরাবর কিছু নিতে হবে।
অপর একটি পাত্রে কিছুটা বেসন নিয়ে, তাতে পানি যোগ করতে হবে।

আস্তে আস্তে নাড়তে হবে এবং তার ভেতরে কিছুটা  লাল মরিচের গুঁড়া, বেকিং সোডা  এবং গোলমরিচের গুড়ো  যোগ করে দিতে হবে।

এরপর সেদ্ধ করে রাখা  ডিমগুলো, বেসনের ডুবিয়ে ডুবো তেলে ভেজে তুলতে হবে।

 ব্যস তৈরি হয়ে যাবে ঝটপট ডিমের চপ। আশাকরি ডিম চপ রেসিপি আপনাদের কাছে ভাল লেগেছে!

 তবে আপনি যদি এটি আরও অথেন্টিক ভাবে তৈরী করতে চান  তাহলে চাইলে এই ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন। 

ডিম সেমাই রেসিপি

ডিম সেমাই রেসিপি! নামটা কি অদ্ভুত তাইনা?

খুব একটা  জটিল রেসিপি নয় তবে অনেক সময় সাপেক্ষ।

চাইলে এই ভিডিও লিংক এ ক্লিক করার মাধ্যমে আপনি দেখে নিতে পারেন ডিমের  এই অদ্ভুত  এবং মজার রেসিপিটি। এ লিংকে ক্লিক করুন! 

দেখলেন তো !  চাইলে বাড়িতে বসেই, ডিম দিয়ে কতইনা রেসিপি তৈরি করা যায়।

আশা করি, আমাদের শেয়ার করার প্রত্যেকটি রেসিপি আপনার পছন্দ হয়েছে, এবং একটি বার হল সেগুলো আপনি বাড়িতে ট্রাই করবেন !

ডিম রেসিপি

আজকের ডিমের রেসিপি বিষয়ক ব্লগটি এখানেই শেষ করছি। কোন কোন দিন নতুন এক রেসিপি নিয়ে আপনাদের সাথে  আবার সাক্ষাৎ হবে !
ভাল থাকবেন-সুস্থ থাকবেন! আল্লাহ হাফেজ !

লেখাটি আবার পড়তে পড়তে চান? আপনার সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.