রান্নার রেসিপি ব্লগ পড়ুন! শিখুন ! লিখুন !

রান্নার রেসিপি প্রস্তুত করে নিজে ও অন্য রকমারী রান্নার আনান্দ দেওয়া অনেকে হবি। আর সেখান থেকেই ব্লগার হয়ে উঠেন অনেকেই।
আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছে যারা ভাল রান্না বান্না করতে পারে এবং তাদের রেসিপিগুলো ইন্টারনেটে শেয়ার করতে চায়।

এবং তার জন্য সবচেয়ে ভালো একটি পন্থা হলো ব্লগিং। আপনি চাইলে ব্লগিংয়ের লেখালেখির মাধ্যমে আপনার রেসিপি গুলো
খুব সংক্ষিপ্ত পরিসরে এবং সুসজ্জিত ভাবে ছড়িয়ে দিতে পারেন নেটিজেনদের মাঝে।

আমরা অনেকেই জানিনা ঠিক কিভাবে রান্নার রেসিপি মূলক ব্লগগুলো লিখতে হয় সুসজ্জিত ভাবে।

আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে এমন কিছু টিপস আপনাকে দেয়া হবে যেগুলো একটি সুসজ্জিত রেসিপি ব্লগ তৈরিতে আপনাকে সহায়তা করবে।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক…

রান্নার রেসিপি বিষয়ক ব্লগে সূচনাতেই যা কিছু থাকবে

লেখার শুরুতেই আপনি, যে রেসিপিটি শেয়ার করতে চলেছেন  তার একটি প্রাথমিক পরিচয় প্রদান করবেন। খাবারটির উৎপত্তি, জনপ্রিয়তা, ঐতিহ্যতা উল্লেখ করতে হবে ।

রেসিপি তৈরীর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণের তালিকা

এখানে খুব সুস্পষ্টভাবে আপনি উল্লেখ করবেন  আপনার শেয়ার করা রেসিপিটি তৈরীর জন্য কি কি ধরনের ইনগ্রিডিয়েন্ট বা উপকরণের 
প্রয়োজন পড়বে। এবং সেইসাথে ঠিক কী পরিমাণে উপকরণ প্রয়োজন পড়বে সেটা উল্লেখ করে দেবেন।
এটি উল্লেখ করে দেওয়া অত্যাবশ্যক, তা না হলে পাঠকেরা  পরবর্তীতে রেসিপিটি তৈরি করতে গেলে বিভ্রান্তিতে পড়তে পারেন।

আপনি যদি বিশেষভাবে প্রস্তুতকৃত কোন উপকরণের নাম উল্লেখ করেন তাহলে সেই ক্ষেত্রে  অবশ্যই সে উপকরণের প্রস্তুত প্রণালী উল্লেখ করবেন।
এটি চাইলে আলাদাভাবে  রেসিপি ব্লগের নিচের অংশে উল্লেখ করতে পারেন। আরো ভালো হয় যদি আপনি এই সংক্রান্ত কোন ব্লগ লিখে
তার একটি ইন্টার্নাল লিঙ্ক শেয়ার করে দেন।

সবশেষে প্রস্তুত প্রণালী

রেসিপি তৈরীর প্রস্তুত প্রণালী উল্লেখ করতে হবে ব্লগের একদম শেষের দিকে। Step-by-step উল্লেখ করবেন। রেসিপি ব্লগের মাধ্যমে যেহেতু  রান্নার প্রস্তুত প্রণালি উল্লেখ করা সম্ভব নয়, কাজেই সেই সকল পয়েন্ট উল্লেখ করুন  যেগুলো পাঠকের না জানলেই নয়।
অবশ্য এটি অনেক ক্ষেত্রে নির্ভর করছে আপনি কত শব্দের ভেতরে ব্লগটি শেষ করবেন তার ওপরে।

রান্নার রেসিপি আর্টিকেল/ ব্লগ কত শব্দের হয়ে থাকে?

এটি মূলত আপনার উপর উল্লেখ করে। তবে আমি পরামর্শ দেব ৪০০ থেকে ৫০০ ওয়ার্ড এর ভেতরে ব্লগটি শেষ করতে।
তাহলে পাঠক সেটি করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন, আর যদি বড় করে ফেলেন  তাহলে বিরক্ত বোধ করবে।

রান্না নিয়ে লেখালিখি পাবেন যে সকল ওয়েবসাইটে

সাজগোজ ( Shajgoj )

Shajgoj 100% আসল পণ্য নিয়ে আসে যা সরাসরি ব্র্যান্ড এবং অনুমোদিত পরিবেশকদের কাছ থেকে পাওয়া যায়। আমরা নকল পণ্য বিক্রির সম্পূর্ণ বিরোধী। আমাদের সাইটে বা আমাদের ফিজিক্যাল স্টোরে বিক্রি হওয়া প্রতিটি পণ্য তাদের বারকোড স্ক্যান করে ব্র্যান্ডে ফিরে যেতে পারে।

মজার রান্না ( mojarranna.com )

মোজার রান্না বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় বাংলা রেসিপি ওয়েবসাইট।mojarranna.com এর বয়স 5 বছর 5 মাস।
এটির #272,093 এর একটি বিশ্বব্যাপী ট্রাফিক র‍্যাঙ্ক রয়েছে।

জাগো নিউজ রান্নার রেসিপি

জাগো নিউজে আপনি জানতে পাবেন রান্নার বিভিন্ন রেসিপি থেকে সহজেই ভিন্ন স্বাদের ও সহজ রান্নার উপায় । আরও পাবেন স্বাস্থ্যকর,সুস্বাদু রান্না, দেশীয় ,
ইন্ডিয়ান রান্না, সকাল বিকালের নাস্তা অল্প সময়ে তৈরী করতে প্রতিদিন পড়ুন জাগোনিউজ এর দেশি বিদেশী নানা স্বাদের রান্নার রেসিপি।

নাহিদা রেসিপি

এ ওয়েবসাইটটির মালিক নাহিদা বলেন, নিজের বানানো বেশ কিছু রান্নার টিপস রয়েছে যা আমি নিয়মিত আমার এই রান্না বিষয়ক ব্লগ সাইটে প্রকাশ করি।
এছাড়াও আমি রান্নার পাশাপাশি, রুপচর্চা এবং ঘরের সকল ধরনের কাজের টিপস এই ব্লগে প্রকাশ করে থাকি। ঠিকানা: nahidarecipe.com

বিডি রেসিপি জোন (ইউটিউব)

এই বিডি রেসিপি জোন নামের চ্যানেলটিতে সিদ্দিকা কবীর, আলপনা হাবীব, কেকা ফেরদৌসী সহ অন্যান্যদের রেসিপির ভিডিও পাওয়া যায়।

পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত রেসিপি

দেশ বিদেশের বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খাবারের রেসিপিগুলো একসঙ্গে পাওয়া যাবে এই বাঙ্গালী রেসিপি ফর ইউ ব্লগ টিতে।
সেই সঙ্গে পাওয়া যাবে কিছু ভিডিও ক্লিপও।

ই-বাংলা রেসিপি

দেশী খাবারের পাশাপাশি চাইনিজ, জাপানিজ, কোরিয়ান সহ অন্যান্য বিদেশি খাবারের রেসিপি পেতে যেতে পারেন www.ebanglarecipe.com।
এছাড়াও রেসিপির পাশাপাশি পুষ্টি সংক্রান্ত তথ্য, খাদ্য সংরক্ষণের উপায় এবং রান্না বিষয়ক নানা পরামর্শ পাওয়া যাবে এখানে।

রান্না-বান্না (ফেসবুক)

দেশী বিদেশী মজাদার সব খাবারের রেসিপি পেতে ফেসবুকে আপনি রান্না-বান্না পেজটি লাইক করে রাখতে পারেন।

রুমানা আজাদ রান্নার ব্লগ

রুমানা আজাদ rumana.net.bd তে লিখেছেন, ‘আমি ভেবেছি এমন কিছু করার যেটা সাধারণ মানুষের কাজে লাগে।
ধরুন কেউ আলুভর্তা করবে কিন্তু স্টেপগুলো সঠিকভাবে জানে না, আমি তাকে সেটা হাতে কলমে শেখাতে চাই।
আবার এমন হতে পারে একটা মেয়ে বা ছেলে নুডুলস রান্না করবে, কিন্তু সাহস করে করতে পারছে না,
আমি তাদের সাধারণভাবে নুডুলস রান্না শেখাতে চাই সকলকে।

ভূলু’স রেসিপি

ভূলু নিজের ওয়েবসাইট www.vulusrecipe.com সম্পর্কে লিখেছেন, ‘আমার এই ব্লগের রেসিপিগুলোয় বাংলাদেশি রান্না আর স্বাদের আসল রূপ খুজে পাওয়া যাবে।
সেই সঙ্গে থাকবে আঞ্চলিক রান্নার রেসিপি যেগুলো বাংলাদেশের রান্না-বান্নার অনন্য স্বাদে যোগ করবে এক নতুন ধারা।

প্রবাসী রওনক ব্লগ

অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী রওনক জাহান তাঁর ব্লগে www.banglarecipes.com.au বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় রান্নার রেসিপি প্রকাশ করে থাকেন।
তিনি সাধারণ রান্নার পাশাপাশি ঈদ ও ইফতারের বিশেষ খাবার-দাবারের রেসিপিও এই ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে থাকেন।

আলপনা হাবীব ও মেহেরুন নেসার চ্যানেল

আলপনা হাবীব ও মেহেরুন নেসার রেসিপির ভিডিও নিয়ে সাজানো হয়েছে রান্না বিষয়ক একটি ইউটিউব চ্যানেল।

দিবা’স রেসিপি চ্যানেল

চকলেট, রসমালাই থেকে শুরু করে ঘি, ভর্তা, বিরিয়ানি, রোস্ট – এমন সব মুখরোচক রান্নার উপায় জানতে যেতে পারেন দিনাস রেসিপি ইউটিউবের এই চ্যানেলে।

সূত্র : ডয়চে ভেলে, ইন্টারনেট

আশা করি ফুডলিংক বিডির এই রান্নার রেসিপি ব্লগ টি ভালো লেগেছে। কোন প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে কমেন্ট বক্সে দয়া করে জানাবেন।
ও হাঁ, আপনিও কিন্তু এরকম সুন্দর সুন্দর ফুড রেসিপি লিখতে বা ইউটিউবে রান্নার ভিডিও বানাতে পারেন! তাহলে এখনি যোগাযোগ করুন।
আরও ভালো জানার জন্য ইউটিউব চ্যানেল থেকে ঘুরে আসতে পারেন। আশা করি সহজ রান্নার রেসিপি ভিডিওটি দেখে আরও সহজে
বাসায় রান্না করতে পারবেন হোটেলের চেয়েও সুন্দর করে। প্রবন্ধটি সংরক্ষণে রাখতে আপনার সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করে রাখুন।
যাতে প্রয়োজনে খুজে পেতে সহজ হয়। সাথে থাকার জন্য অন্তরের অন্তরস্থল থেকে এক রাশ প্রিতি ও ভালোবাসা রইল।

লেখাটি আবার পড়তে পড়তে চান? আপনার সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.